Quantcast
Ads by Techtunes - tAds

টেকটিউনস Super Successor : আরাফাত রহমান, সহ-প্রতিষ্ঠাতা, Host Aroma

1 টিউমেন্টস 316 দেখা প্রিয়

টেকটিউন Super Successor গেস্ট:  আরাফাত রহমান, সহ-প্রতিষ্ঠাতা, Host Aroma
সময়: সোমবার, ২১ আগষ্ট ২০১৭।দুপুর ১২ টা।
ব্যাপ্তি: প্রায় ২০ মিনিট
স্থান: Host Aroma এর অফিস, ঢাকা।

 

টেকটিউনস Super Successor হিসেবে আজকে  হাজির আছে বাংলাদেশের আইটি জগতের একজন পরিচিত মুখ এবং টেকটিউনসের অনেক সিনিয়র একজন টিউনার। তিনি দীর্ঘ সময় ধরে আছেন টেকটিউনসের সাথে। যার আইটি এই জগতের চলার পথ ছিল আমাদের টেকটিউনস।

তিনি আজ নিজেকে একজন সফল ব্যক্তি হিসেবে তুলে ধরেছেন।আমাদের তরুণদের জন্য উনি অনেক বড় একটি উদাহরন। তিনি হচ্ছেন আমাদের সকলের পরিচিত  Host Aroma এর পরিচালক আরাফাত রহমান। আজ তার মুখ থেকেই শুনব, ্তার সাফল্যের কিছু কথা।

আপনাদের কোম্পানির শুরুর কথাটা আমাদের বলুন?

আসসালামুআল্লাইকুম, আমি আরাফাত রহমান। Host Aroma এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা। আমাদের শুরুটা সম্পূর্ণ গ্রাম থেকে। ময়মনসিংহ জেলার, ভালুকা উপজেলার, বেরুনিয়া ইউনিয়ন এর কেচেন গ্রাম। আমরা আমাদের hosting buisness এর শুরুতে কোন টাকা invest করি নাই। আমরা ২০১৩ সাল থেকে এটা শুরু করি।

আমরা ২০১৩ সালের আগস্টে ক্লায়েন্ট এর কাছে থেকে domain and hosting এর একটা কাজ পাই।এটা একটা কর্পোরেট ক্লায়েন্ট ছিল। কাজটা করে আমরা যেই পরিমাণ টাকা পাই, সেই টাকা দিয়ে আমারা একটা web hosting reseller package নেই। আমি দুইটা domain কিনি একটা আমাদের জন্য আরেকটা client এর জন্য।

তো আমরা যেই startup company টা শুরু করেছিলাম তার নাম ছিল greenitbd.com।সেখান থেকেই আসলে মূলত hosting industry তে প্রবেশ করা। যেহেতু এটা ১ বছরের জন্য নেয়া ছিল তাই ১ বছরের মধ্যে আর কোন dealing নিয়ে চিন্তা করতে হয় নাই।

আমরা তখন টেকটিউনস সহ আরও কিছু ব্লগ পড়তাম। সবচেয়ে বেশি টেকটিউনসই পড়া হতো। ঐখান থেকে বেশ কিছু friend পাই। যখন টেকটিউনসে টিউন লিখতাম নিচে আমার ফেসবুক আইডিও দিয়ে দিতাম। তো আমি সেখান থেকে বেশ কিছু ক্লায়েন্ট পাই। ২০১৩ সালে, তেমন না ৩ থেকে ৪ জন ক্লায়েন্ট হবে।

আমরা ডিসেম্বর এর শুরুর দিকে কিছু প্রতারণার শিকার হই। যেই company এ থেকে web hosting reseller package নিয়েছিলাম, সেই company এর কাছ থেকেই প্রতারণার শিকার হই। তারা আমাদের access দিচ্ছিল না, এক-দুইজন বড় ক্লায়েন্টের সাইটগুলো suspense করে দিয়েছিল। এ ধরনের আরও কিছু সমস্যা হচ্ছিল। যার জন্যর আমরা hosting টা change করে ফেলে mymensinghsource.com এ নামে শুরু করি। একটা কথা বলে রাখি, তখন আমি একা ছিলাম না। আমার সাথে আমার এক friend ও ছিল। আমি এবং জিহাদুর রহমান নয়ন।

আমরা দুইজনই শুরু করেছিলাম। আমরা ২০১৪ সালের জানুয়ারির ২ তারিখ থেকে এটা শুরু করি mymensinghsource.com এ নামে এবং greenitbd.com এর যেই কয়টা panel ছিল, ঐগুলো সব আমরা এখানে transfer করে নিয়ে আসি। ২০১৪ সালে যেটা শুরু করেছিলাম, সেটা master reseller package দিয়ে শুরু করি। ২০১৪ সালে আমরা আরও বেশ কিছু ক্লায়েন্ট পাই। ঐটা আমাদের monthly package ছিল। তাই monthly টাকা দিতে হতো। ঐটাতে আমাদের তেমন problem হতো না। ২০১৪ সালে আমাদের প্রায় ১৫-২০ জনের মত ক্লায়েন্ট হয়।

২০১৫ সালে এটাকে আর একটু ভালো ভাবে শুরু করি। আরও actively কাজ করা শুরু করি, ব্লগিং এর পরিমাণ বাড়িয়ে দেই, ফেসবুকিংটা একটু বেশি করি, ফেসবুক পেইজ এবং গ্রুপ গুলোতে একটু সবকিছু শেয়ার করা শুরু করি এবং বিভিন্ন প্রমোশন এবং অফার দিতে থাকি। আস্তে আস্তে ক্লায়েন্ট এর পরিমাণ ও বাড়তে থাকে। ২০১৫ এর শেষের দিকে প্রায় ১০০ এর মত ক্লায়েন্ট ছিল।

তখন আমরা dedicated server নেই এবং আর একটু বড় পরিসরে আগাতে থাকি। তখন বেশ কিছু ব্যান্ডিং করি promotion এর জন্যে। ২০১৬ সালে প্রথম টেকটিউনসে বিজ্ঞাপন দেই। ঐটাই আমাদের প্রথম বিজ্ঞাপন ছিল এবং আলহামদুলিল্লাহ, ঐখান থেকে বেশ ভালো পরিমানের কিছু ক্লায়েন্ট পাই। বেশ কয়েকমাস ধরেই বিজ্ঞাপন দেই। এখানে বেশ কিছু ক্লায়েন্ট আছে, যারা প্রতারণার স্বীকার হয়ে তাদের সাইটগুলো আমাদের এখানে transfer করেছে। ২০১৬সালে আমরা plan করি যে আমরা hosting industry তে আর একটু ভাল করব। সেই জন্য আমাদের আর একটা প্রতিষ্ঠান ছিল রিয়াদ হাসানের। ঐটার নাম ছিল host alpine।

তো আমরা ২টা প্রতিষ্ঠান এক সাথে করবার চিন্তা ভাবনা করি। ২০১৬ সালের March মাস থেকে আমরা এটার কাজ শুরু করি Host Aroma নামে। একদিক থেকে mymensinghsource.com যেই ক্লায়েন্টগুলো ছিল ঢাকা, চিটাগাং অথবা অন্যান্য অঞ্চলে অথবা দেশের বাহিরেও। mymensinghsource.com এর নামটা অনেকটা localy নাম হয়ে যায়।

অনেকেই জিজ্ঞাসা করত, আমরা তো ঢাকায় থাকি তো mymensing থেকে কেন hosting কিনব। অনেকে এটাকে mymensinghsource বলত না, বলত mymensing থেকে বলছেন। তো তখন আমরা plan করি যে আমরা hosting company টাকে একটা global brand হিসেবে দাড়া করানোর জন্য।

তখনই আমরা mymensinghsource এবং host Alpine কে একসাথে করে ফেলি। আমরা ২০১৬ সালের অক্টোবর থেকে আমাদের Host Aroma নিয়ে যাত্রা শুরু করি। আমাদের যতগুলো panel ছিল, website ছিল, সবগুলোকে আমরা একটা panel এবং server এ transfer করি। প্রায় ৪০০ এর কাছাকাছি panel ছিল এবং domain গুলোকেও ঐ panel থেকে transfer করা, সব মিলিয়ে একটু সময় লেগেছিল।

আপনার কোম্পানির বর্তমান অবস্থার কথা আমাদের বলুন?

আলহামদুলিল্লাহ, এখন সবকিছু অনেক ভালো যাচ্ছে। আমাদের অফার গুলো থেকে এবং প্রমোশন থেকে যেই ক্লায়েন্টগুলো এসেছিল। বেশির ভাগই দেখা যাচ্ছে renew করে না। এজন্য এখন আমরা corporate level এর corporate business এর দিকে move করতেছি। এখন corporate business থেকেই আমাদের বেশি revenue হয়।

ঐখানে কোন অফার দিতে হচ্ছে না। ক্লায়েন্টগুলো স্থায়ী হচ্ছে। আমরা আমাদের অন্যান্য কাজ গুলোও করতে পারতেছি। webdesign, development, software এসব গুলোতে। বর্তমানে আমাদের ৫০০ এর উপরে ক্লায়েন্ট আছে।

বাংলাদেশের hosting industry নিয়ে আমাদের কিছু বলুন?

বাংলাদেশের hosting industry এখন আলহামদুলিল্লাহ ভালো। কিন্তু অনেক ভালো তা বলা যাবে না। কারণ হচ্ছে আমাদের নিজস্ব এখন পর্যন্ত কোন ডাটা সেন্টার নাই।আমাদের দেশের বাহিরের ডাটা সেন্টার গুলো ব্যবহার করতে হয়। বাংলাদেশে এখনও কোন domain register company নাই। কিছু প্রতিষ্ঠান আছে যারা globally মোটামুটি ভালো করছে। আশা করি সামনে কিছু brand বাংলাদেশ থেকে globally দাঁড়াবে।

আপনাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে আমাদের বলুন?

আমরা স্বপ্ন তো অবশ্যই দেখি। স্বপনের পথেই হাঁটিতেছি। আমাদের এখানে full time ১০ জনের মত কাজ করছে। part time এ ও অনেকে কাজ করেছে। ২০১৭ -২০১৮ এর মাঝে আমরা আরও অনেক লোকের জন্য কর্মসংস্থানের চেষ্টা করব। আমাদের plan হচ্ছে কমপক্ষে ১০০জনের কর্মসংস্থান করার। mymensing কে দেশের এক নম্বর আইসিটি নগর হিসেবে গড়তে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের টিমের সবাই অনেক তরুণ। তরুণরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে এটা আমার বিশ্বাস।

Mymensing কে দেশের এক নম্বর আইসিটি নগর হিসেবে গড়তে আমরা কাজ করে যাচ্ছি কারণ, আপনি যদি লক্ষ্য করেন দেখতে পাবেন, USA, UK, Australia সহ কোন রাজধানী নগরীর কোনটাই আইসিটি নগর হিসেবে গড়ে উঠে নাই। আমাদের দেশে আইটি নগরী বলতে সবাই রাজধানী শহরটাকেই বুঝে।

এজন্য আমরা রাজধানী থেকে বের হয়ে আমাদের মেইন headoffice mymensing এ করেছি। আমাদের টার্গেটই হচ্ছে, স্থায়ীভাবে mymensing এ থাকা এবং এখান থেকেই কাজ করা। এখানে প্রচুর উন্নয়নের সম্ভাবনা রয়েছে। শিক্ষা ক্ষেত্রেও mymensing অনেক এগিয়ে। এখানকার তরুণদের নিয়েই আমাদের এগিয়ে চলা। সেই ক্ষেত্রে আমরা অনেক আশাবাদী, mymensing একদিন দেশের প্রধানতম আইসিটি নগর হিসেবে গড়ে উঠবে।

আপনার কোম্পানি অন্যান্য hosting কোম্পানি থেকে কেন বেশি trust able?

আমাদের এখানে ৭০% এর উপরে ক্লায়েন্ট বিভিন্ন জায়গা থেকে প্রতারিত হয়ে আমাদের এখানে এসেছে। সেই ক্ষেত্রে আমি মনে করি ক্লায়েন্টের ক্ষেত্রে বিশ্বস্ততার যেই জায়গাটা রয়েছে আমরা সেটা অর্জন করতে পেরেছি।আমরা ক্লায়েন্টকে live support দিয়ে থাকি।সকাল ১০ থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত মোবাইল ফোনে support দিয়ে থাকি। এছাড়া মেইলের মাধ্যমে সাপোর্ট দিয়ে থাকি।

মাঝে মাঝে personal ভাবেও support দিয়ে থাকি। আমরা অফার কম দিই। সাপোর্ট ভালো দেই। আমাদের server অনেক high configuration server, Rittal এ করা, SSD or SSHD Drive,Daily or weekly Backup এর সুবিধা আছে। Industry এর মাঝে তাল মিলিয়ে আমরা সবসময় product এর কোয়ালিটি রাখবার চেষ্টা করি।

আমাদের তরুণ প্রজন্ম যদি এই ব্যবসায় আসতে চায়, তাদের উদ্দেশ্য কি পরামর্শ দিবেন?

আমাদের তরুণ প্রজন্ম যদি এই ব্যবসায় আসতে চায়, তাদের উদ্দেশ্য আমার পরামর্শ হচ্ছে, খুবই কম পুঁজি investment করা।আইটি Buisness টা এখন এরকম যে কম টাকা investment করে বেশি টাকা আয় করবার চেষ্টা করতে হবে।

যেমন ধরুন, আপনি শুরুতে একটা reseller 10gb package দিয়ে শুরু করলেন।এখানে আপনি ২০ বা ৩০ টা ক্লায়েন্ট add করতে পারেন। আপনার pacakge টা full হয়ে গেলে আপনি সেটা update করতে পারেন ২০জিবি, ৪০জিবি বা ১০০ জিবি।এভাবে করে আপনি আগাতে পারবেন। এরপর ১০০ বা ২০০ মত ক্লায়েন্ট হয়ে গেলে আপনি VPS hosting এ যেতে পারেন।যখন আনার ৩০০বা ৪০০ ক্লায়েন্ট হয়ে গেলে আপনি dedicated server এ যেতে পারেন।

প্রথম দিক থেকে dedicated server বা VPS hosting ব্যবহার করবার কোন দরকার নেই। এরপর যখন আপনার মার্কেটিং এর ব্যাপারটা আসে তখন ফেসবুক পেইজ, গ্রুপ এবং যারা hosting কেনার সম্ভাবনা আছে। তাদের সাথে relation buildup করতে হবে। এরপর টেকটিউনস আমাদের জন্য অনেক ভালো একটা platfrom Paid Marketing  মার্কেটিং করার জন্য। এর মত ব্লগ সাইট গুলোতে আপনার কোম্পানির প্রচারণা করতে পারেন। প্রতিষ্ঠানের revenue বাড়লে Paid Marketing করা উচিত।

কিন্তু যদি আপনি ৫ বা ১০ লাখ টাকা নিয়ে buisness করতে চান। তাহলে আপনার জন্য startup এর পরামর্শ চলবে না।startup এর জন্য যেটা বলব সেটা হচ্ছে, entrepreneurship এবং business এক না এখানে।এখানে struggles করতে হবে। নিজে অনেক কাজ করতে হবে, পরিশ্রম করতে হবে। অনেক বাধা আসবে,যেগুলোকে অতিক্রম করতে হবে। সব মিলিয়ে লেগে থাকতে হবে। পিছিয়ে পড়া যাবে না।প্রথম দিকে নিজে শ্রম দিবেন, শ্রমিকের দরকার নাই।এরপর ধীরে ধীরে এগিয়ে যেতে হবে।

বাংলাদেশের IT Industry এগিয়ে নিয়ে যেতে আপনি কিভাবে কাজ করতে চান?

বাংলাদেশের IT Industry এগিয়ে নিয়ে যেতে সেই শুরু থেকেই আমরা কাজ করছি। যেহেতু আমাদের শুরুটা একদম গ্রাম থেকে হয়েছিল।আজ আমরা এই পর্যায় এসেছি। বর্তমানে ২০জন লোকের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে পেরেছি আমাদের এখানে।আমাদের ৭০০জনের মত ওয়েব এবং ২৭০০ মত hosting এর ক্লায়েন্ট রয়েছে।

Mymensingh এর আইটি প্রফেশনালদের সবচেয়ে বড় অনলাইন কমিউনিটি Mymensingh IT Park এর ও সহ-প্রতিষ্ঠাতা আমি।Mymensingh IT Industry কে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য আমি সবসময় কাজ করে যাচ্ছি। প্রতিটা মফস্বল এলাকাকে যতক্ষণ পর্যন্ত ডিজিটাল না করতে পারব।ততক্ষণ ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়া সম্ভব না। আমাদের ক্লায়েন্ট শুধু ঢাকা বা ময়মনসিংহে না এর বাহিরেও রয়েছে।

আমরা বর্তমানে শুধু মাত্র hosting এর কাজই করছি না। আমরা software development এর কাজও করছি।Host Aroma বর্তমানে software নির্মাতা প্রতিষ্ঠান "Softever" এর একটি অঙ্গ প্রতিষ্ঠান।

টেকটিউনস বাংলাদেশের তথ্য প্রযুক্তি খাতে এক বিপ্লব তৈরি করেছে ? এ ব্যাপারে আপনার মতামত কি?

টেকটিউনস বাংলাদেশের তথ্য প্রযুক্তি খাতে এক বিপ্লব তৈরি করেছে।এ ব্যাপারে আমার মতামত তো অবশ্যই আছে। বাংলাদেশের IT Industry তে senior যারা আছে।তারা প্রত্যেকেই একসময় টেকটিউনসে লিখালিখি করত। টেকটিউনস এর বাংলাদেশের তথ্য প্রযুক্তি খাতের এই বিপ্লব এর কথা শুধু আমি না, এই IT Industryএর ৯০% এর উপর it professional ব্যক্তিরা এটা স্বীকার করবে।

আমার মত শুধু একজন Host Aroma এর প্রতিষ্ঠাতা না, এরকম আরও অনেক প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতারা আমাদের টেকটিউনসে পেয়েছে আমরাও তাদের টেকটিউনসে পেয়েছি। it professional ব্যক্তিদের জন্য টেকটিউনস কি। এটা শুধুমাত্র সেই ব্যক্তিরাই ভাল জানে। আমার এই ভিডিওটা যারা দেখবেন।তারা প্রতিটা মানুষ ভালো জানবে টেকটিউনস একজন it professional ব্যক্তিদের জন্য টেকটিউনস কি।

আমরা সকলেই এখন অনেক ব্যস্ত হয়ে পরেছি আমাদের নিজেদের কাজ নিয়ে। কিন্তু টেকটিউনসের প্রতি সেই ভালো লাগাটা সবসময় থাকবে আমার মাঝে।

টেকটিউনসের Branding ও Advertising করে আপনি কিভাবে উপকৃত হয়েছেন?

টেকটিউনসের Branding ও Advertising করে আমি কতটুকু উপকৃত হয়েছি, সেটা আমি already বলে দিয়েছি। আমরা টেকটিউনস থেকে প্রচুর ক্লায়েন্ট পেয়েছি। আমরা অনেক সময় ধরে এর সাথে কাজ করে যাচ্ছি। একবার আমরা Plan করেছিলাম যে আমরা আমাদের logo টা ১ কোটির বেশি মানুষকে দেখাব। আমাদের plan টা success হয়েছিল। অনেক ভালো সাড়া পেয়েছি।

টেকটিউনসের জন্য আপনার কোন পরামর্শ?

টেকটিউনসের জন্য আমার পরামর্শ হচ্ছে, এখানে প্রচুর spamming হয় এখন। Techtunes Trinity ২০১৫তে আসবোর কথা ছিল, ২০১৭ এতে তা আমরা দেখেছি। এখনকার থিমটা ভালো।টেকটিউনস সব সময় নতুন নতুন কিছু করবার চেষ্টা করে থাকে। যেমন এই টেকটিউনস super successor। আমি হয়তো এখনও successor হতে পারি নাই কিন্তু চেষ্টা করে যাচ্ছি কিছু করবার জন্য।  আমি একজন সপ্নবাজ তরুণ, আমি সবসময় স্বপ্ন দেখি, স্বপ্ন দেখাই। সেই স্বপ্নের পথ ধরেই হেঁটে চলেছি।

টেকটিউনসকে এটাই বলতে চাই, আপনারা সবসময় এ ধরনের নতুন নতুন কিছুই নিয়ে আসেন।ভাল ভাল কিছু টিউনারকে খুঁজে বের করেন। আমাদের দেশের প্রচুর মেধাবী তরুণ আছে। ওদেরকে এখানে involve করেন। Seinor যারা আছে তাদেরকে involve করেন। এভাবে চেষ্টা করে যান।

এসময় টেকটিউনস আমাদের জন্য অনেক বিশাল কিছু ছিল। এখানে একটা Post করা আমাদের জন্য অনেক বড় ব্যাপার ছিল। আমরা চাই টেকটিউনস তার সোনালী অতীত ফিরিয়ে আনুক।টেকটিউনসের সব senior রা আবার এখানে ফিরে আসুক। তারা আসুক তাদের সাফল্যের গল্পগুলো আমাদের শোনাতে।

সবশেষে, টেকটিউনসের জন্য অনেক শুভ কামনা রইল। টেকটিউনসের সাথে ছিলাম, আছি এবং থাকব সবসময়। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ হাফেজ।

Ads by Techtunes - tAds
টিউনার সৌশল মিডিয়া
Ads by Techtunes - tAds
টিউমেন্টস টিউমেন্ট গুলো

৭ বছর হলো টেকটিউন্সের সাথে আছি,কিন্তু কস্টের বিষয় হচ্ছে টেকটিউনসকে আর আগের মত এলেক্সা র‍্যাংকিয়ে দেখা যায় না। আর আগে যেমন আমাদের গেট টুগেদার বা মিট আপ হতো, সেটা আবার নতুন উদ্যমে চালু করা উচিত।আর আগে কোন পোস্ট হলে, কমেন্টে ভরে যেত, আলোচনা বা সমালোচনার মধ্যে দিয়ে অনেক কিছু শেখা হয়ে যেত,কিন্তু সেটার এখন বড় অভাব,যে কারনে মানুষ টিউন করার আগ্রহ হারিয়ে ফেলছে !

You must be logged in to post a Tumment.